মিয়াখালিফার দেহে উল্কা খচিত ট্যাটু  থাকার পেছনে কারণ হিসাবে রয়েছে তার নিজের জন্মভূমির প্রতি অগাধ ভালোবাসা

নিউজ ডেস্ক নীল ছবি বা পর্ণ  ভিডিওতে এক সময় জনপ্রিয় ছিল মিয়া খালিফা। কিন্তু সম্প্রতি সেই জগৎ থেকে বিরত নিয়েছেন তিনি। কিন্তু পর্ণ দুনিয়া থেকে বিরোধী নিলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বরাবরই একটিভ থাকেন মিয়া খালিফা। কিন্তু পর্ন তারকার দেহে খোদাই করা রয়েছে একাধিক ট্যাটু। কোথাও উল্কা তো কোথাও স্টার একাধিক ট্যাটু নিজের মসৃণ দেহে খোদাই করে রেখেছেন মিয়া খালিফা। যদিও সম্প্রতি এর রহস্য উদঘাটন করেছেন তিনি।

জানা যায় মিয়াখালিফার দেহে উল্কা খচিত ট্যাটু  থাকার পেছনে কারণ হিসাবে রয়েছে তার নিজের জন্মভূমির প্রতি অগাধ ভালোবাসা। কারণ জানা যায় তিনি জন্মগ্রহণ করেছেন লেবানিয়ায়। যার কারণে তার বাম হাতের ট্যাটুর উল্কা গুলি লেবানীয় ফোর্সেস ক্রুশের উল্কিকে সম্মানিত করে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি তার ডানহাতে আরবি শব্দের অক্ষরগুলি হত লেবাননের জাতীয় সংগীতের প্রথম লাইন। নিজের দেশের প্রতি অগাধ ভালবাসা থাকার কারণে এই পর্ন তারকা নিজের শরীরে জাতীয় সঙ্গীতের দুটি লাইন ট্যাটু করিয়েছেন। 

মিয়া খলিফার জীবনী ঘাটলে দেখা যায়, ১৯৯৩ সালের ১০ই ফেব্রুয়ারি লেবাননের বৈরুতে জন্মগ্রহণ করেন মিয়া খালিফা। পরবর্তীতে যখন তার ১০ বছর বয়স অর্থাৎ ২০০০ সালে তখন সপরিবারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্থানান্তরণ করেন তারা। তার পরিবার ‌ মূলত ছিল ক্যাথলিক ধর্মের। সেই ধর্ম অনুসরণ করে শৈশব থেকে বেড়ে উঠলেও কিশোরী বয়সে সেই ধর্মের পালন করতেন না তিনি। পরবর্তীতে মিয়া খালিফা  মন্টগোমেরি কাউন্টি, মেরিল্যান্ডে বসবাস করতে। কার্যত সেখান থেকেই নিজের উচ্চ বিদ্যালয়ে পাশ করার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় টেক্সাস অ্যাট এল পাসো থেকে ইতিহাস বিষয়ে বিএ  ডিগ্রি নিয়ে কলেজ পাস করেন। এমন শিক্ষিত একজন মহিলা বর্তমানে  গোটা দুনিয়ায় পর্ন তারকা হিসেবে পরিচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.