ভিটামিন ‘ই’ এর অভাবে  চুল পড়া ও চুল পাতলা হয়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়

নিউজ ডেস্কঃ ভিটামিনের অভাবে একাধিক রোগ হতে পারে। কিন্তু কোন ভিটামিনের অভাবে কি রোগ হয় তা অনেকরই অজানা।

চুলপাতলা হয়ে যাওয়াঃ ভিটামিন ‘ই’ এর অভাবে  চুল পড়া ও চুল পাতলা হয়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়।কারন  ভিটামিন ‘ই’ চুল ভালো রাখতে সাহায্য করে।এছাড়াও ত্বককে তারুণ্যদীপ্ত ও স্বাস্থ্যকর রাখতে সাহায্য করে।তাই চুলের পড়া ও চুল পাতলা হয়ে যাওয়ার সমস্যা  থেকে মুক্তি পেতে হলে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ভিটামিন ‘ই’ থাকলে চুল ও ত্বক ভালো থাকে। 

পেশির দুর্বলতাঃ  ভিটামিন ‘ই’-এর অভাবে মায়োপ্যাথির মতো সমস্যার সৃষ্টি  হয়।এ সমস্যাটি হয়  মূলত শরীরে পেশির আঁশের দুর্বলতা হলে এবং এর জন্য শরীর দুর্বল লাগতে পারে। তাই রোজকার খাদ্যতালিকায় ভিটামিন ‘ই’ রাখুন।দেখবেন এইসব সমস্যায় উপাকার পাবেন।

ভারসাম্যহীনতাঃ  ভিটামিন ‘ই’-এর ঘাটতি হলে নানান রকমের সমস্যা দেখা দেয়।যেমন- ভিটামিন ‘ই’-এর অভাবে শরীরে ভারসাম্যহীন বোধ হয়। মূলত ভিটামিন ‘ই’-এর অভাবে স্নায়ুগুলোতে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস বেড়ে যায় যার কারণে এই ধরনের সমস্যা হয়।   

ঝাপসা দেখাঃ  ভিটামিন ‘ই’-এর উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান যা চোখের রেটিনাকে সুরক্ষা দেয়।তাই চোখে ঝাপসা দেখার একটি অন্যতম কারন হল ভিটামিন ‘ই’ এর অভাবে। এ ছাড়া এই ভিটামিনের ‘ই’-এর অভাবে  নানা ধরনের সমস্যা যেমন- শরীরে হালকা ও রক্তশূন্যতা হতে পারে।

প্রজননের ক্ষমতা হ্রাসঃ ভিটামিন ‘ই’ অভাবে প্রজননের ক্ষমতা হ্রাস পায়।

মাতৃগর্ভস্থ ভ্রনের স্বাভাবিক বৃদ্ধি হ্রাসঃ  ভিটামিন ‘ই’ অভাবে মাতৃগর্ভস্থ ভ্রনের স্বাভাবিক বৃদ্ধি হ্রাস পায়।

তবে ভিটামিন ই অভাব পূরন করতে হলে বেশি করে ভিটামিন ই যুক্ত খাদ্য খান।যেমন- লেটুস শাক, সয়াবিন, অঙ্কুরিত ছোলা, গম, সবুজ শাকসবজি প্রভৃতিতে প্রচুর পরিমানে  ভিটামিন ই আছে।এছাড়াও দুধ, ডিমের কুসুমে সামান্য পরিমানে আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.