ব্রনের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে অল্প কর্পূর গুড়ো অলিভ অয়েল অথবা নারকেল তেল মিশিয়ে নিয়ে ব্রণের জায়গাগুলিতে মাসাজ করুন

নিউজ ডেস্কঃ আমরা সবাই জানি যে পুজো কাজে কর্পূর ব্যবহার করা হয়।কিন্তু আপনারা কি জানেন যে এছাড়াও কর্পূরের নিজস্ব কিছু গুন আছে।যা থেকে অনেক সমস্যা মুক্তি দেওয়ার ক্ষমতা আছে।বিশেষ করে রুপচর্চার ক্ষেত্রে কর্পূরের জুরি মেলা ভার।কারন এর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের উপাদান যা ত্বকের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দূর করার পাশাপাশি আমাদের চুলেরও অনেক সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে সাহায্য করে।তাই রূপচর্চার ক্ষেত্রে কিভাবে ব্যবহার করবেন এই কর্পূর জেনে নিন।

বর্তমান দিনে ত্বকের বড়ো সমস্যাগুলি মধ্যে একটি ব্রনের সমস্যা।এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে একটি পাত্রে অল্প কর্পূর গুড়ো নিয়ে তাতে সামান্য  অলিভ অয়েল অথবা নারকেল তেল অথবা আমন্ড তেল  মিশিয়ে নিয়ে ব্রণের জায়গাগুলিতে মাসাজ করুন৷এতে  ব্রণের সমস্যা দূর হওয়ার পাশাপাশি ব্রণের দাগ দূর করতে সাহায্য করবে।

চুলকানি ও র‍্যাশের সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে এই কর্পূর৷তাই চুলকানি হলে এক টুকরো কর্পূর নিয়ে তাতে  সামান্য জল মিশিয়ে নিয়ে ওই জায়গায় মিশ্রণটি দিয়ে ধুয়ে নিন৷এতে চুলকানি কমে যাবে৷তবে কাটা বা ক্ষত স্থানে কর্পূর ব্যবহার করা একদমই উচিত নয়৷

চুলের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে এই কর্পূর।তাই চুল পরা বন্ধ করতে আপনি চুলে যে তেল ব্যবহার করেন তাতে অল্প কর্পূর মিশিয়ে নিয়ে চুলে লাগান৷ এতে চুল পরা কমার পাশাপাশি   খুশকিও দূর করতে সহায়তা করবে।

পেশীতে সংকোচনের সমস্যা দেখা দিতে তার থেকে মুক্তি পেতে একটি পাত্রে সর্ষের তেল অথবা নারকেল তেল নিয়ে তাতে কর্পূর মিশিয়ে গরম করুন।তারপর কর্পূর গলে গেলে একটু ঠাণ্ডা করার জন্য রেখে দিন।তারপর উষ্ণ গরম থাকতে থাকতে পায়ে মালিশ করুন৷এতে ভালো উপকার পাবেন।

অনেক সময় শিশুর বুকে কফ জমে থাকে।এই সমস্যা থেকেও মুক্তি দিতে সাহায্য করে কর্পূর।আর এর জন্য  একটি পাত্রে সর্ষের তেল অথবা নারকেল তেল নিয়ে তাতে কর্পূর মিশিয়ে গরম করুন।তারপর কর্পূর গলে গেলে একটু ঠাণ্ডা করার জন্য রেখে দিন।তারপর উষ্ণ গরম থাকতে থাকতে বুকে পিঠে মালিশ করুন।এতে উপকার পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.