অনেকে রোজ সকাল বেলায় খালি পেটে কফি পান করে এটা করা একদমই উচিত নয় কারন?

নিউজ ডেস্কঃ কফি পান করা মানুষের কাছে একটি অভ্যাস।কফি খাওয়া শরীরের পক্ষেও ভাল তবে পরিমানমত খেলে।কারন কফিতে থাকে ক্যাফেইন নামক একটি উপাদান যা স্নায়ুকে উদ্দীপ্ত করে কর্মক্ষমতা বাড়ায়৷তাই কফি খাওয়া ভালো।কিন্তু পরিমানমতো কফি খেলে যেমন শরীরে উপকার পাওয়া যায় ঠিক তেমনি বেশি পরিমানে খেলে সেটি শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক হয়ে উঠে।তাই কফি বেশি খাওয়ার আগে এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া গুলি জেনে নিয়ে সতর্ক হন।জেনে নিন কফির ক্ষতিকারক প্রভাব।

১. অনেকে রোজ সকাল বেলায় খালি পেটে কফি পান করে এটা করা একদমই উচিত নয় কারন প্রতিদিন সকালে খালি পেটে কফি খাওয়ার ফলে পাকস্থলীতে হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড তৈরি হতে পারে৷যা খাবার পরিপাক করতে ব্যবহৃত হয়৷এরফলে এই অ্যাসিড পাকস্থলীতে প্রচুর পরিমাণে  থাকলে খাবার  দ্রুত পরিপাক হবে৷এবং এর থেকে ফলে পেটের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা যেমন বদহজম দেখা দিতে পারে।

২. কফি আলসার, গ্যাসট্রিকের সমস্যা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে কারন এর বীজে থেকে ক্যাফেইন ও অন্যান্য অম্লীয় উপাদান ।

৩. কফি বেশি পরিমানে পান করলে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।এর ফলে কিডনির  কার্যক্ষমতা হ্রাস পেতে পারে।

৪.বেশি পরিমানে কফি পান করলে ক্যানসার হওয়ার ঝুঁকি থাকে।কারন উচ্চ তাপমাত্রায় যখন কফির বীজ থেকে কফি তৈরির করা হয় সেই সময় এতে ক্যানসারের প্রভাব বিস্তারকারী উপাদান তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়৷

৫. কফি যেমন শরীরে কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে ঠিক তেমনি  স্নায়ুদতন্ত্রকে ক্ষতি করে।তাই দীর্ঘদিন ধরে যদি অতিরিক্ত পরিমাণে কফি পান করেন তাহলে এর জন্য আপনাদের স্বাভাবিক উদ্দীপনাও নষ্ট হতে পারে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.