চা পাতা ব্যবহারের আগে মিনিট দশেক ঠাণ্ডা জলে ভিজিয়ে রাখুন, তারপর ছেঁকে চায়ের জলে মেশান।চায়ের সুগন্ধ ও স্বাদ দুটোই বাড়বে

নিউজ ডেস্কঃ রান্নার পর গরম কড়ায় কাগজ দিয়ে ধরে মাজলে তেল ও পোড়ার দাগ তাড়াতাড়ি উঠে যাবে।পরিশ্রমও কম হবে।

চাটু বা তাওয়া পুড়ে গেলে সেই কালি তুলতে গেলে ছানার জল ঢেলে দিন।ঠাণ্ডা হলে সাবান দিয়ে ঘষুন। দাগ উঠে যাবে।

চা পাতা ব্যবহারের আগে মিনিট দশেক ঠাণ্ডা জলে ভিজিয়ে রাখুন, তারপর ছেঁকে চায়ের জলে মেশান।চায়ের সুগন্ধ ও স্বাদ দুটোই বাড়বে।

চায়ের স্বাদ বাড়াতে চা ভেজানো সময় টাটকা বা শুকনো কমলা লেবুর খোসা ও দু-চার টুকরো জলে দেবেন।

কফির স্বাদ যদি আরও বাড়াতে চান তাহলে সামান্য টেবিল-সল্ট মিশিয়ে নিন।

তুলাসি পাতা শুকিয়ে গুঁড়ো করে রাখুন, চা তৈরির সময় দু-চিমটে লিকার দিয়ে দেবেন। আরো ভালো স্বাদ আসবে।নানা রোগও আটকাবে।

এক টুকরো সৈন্ধব লবন ঘি এর শিশিতে রেখে দিন। এতে ঘিও বেশিদিন টাটকা থাকবে, স্বাদেরও পরিবর্তন হবে না।

ভোজ্য তেলে ৮/১০ টা আস্ত গোলমরিচ ফেলে দিন। দীর্ঘদিন অব্যবহৃত হলেও ভাল থাকবে।

দই পাতবার সময় দুধের সাথে কনফ্লাওয়ায় গুলে দেবেন। দই অনেক বেশি ঘন হবে।

গরু বা মোষের দুধ ঠিক সময় মতো গরম না করলে কেটে যাবার ভয় থাকে। দুধের সাথে দুফোঁটা সরষের তেল দিলে দুধ যখনই ফোটানো হোক না কেন দুধ কাটবে না।

দুধ থেকে পোড়া গন্ধ দূর করতে হলে তাতে পান পাতা ফেলে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিন। পোড়া গন্ধ থাকবে না।

পিঠে, পাটিসাপটা, মালপোয়া প্রভৃতি তৈরির করার সময় গোলায় একটু আটা মিশিয়ে দিলে পিঠে ঠিক ভাবে তৈরি হয়।

কেক, পুডিংয়ের উপর বাদাম, কাজু বা কিসমিস সাজিয়ে দেওয়ার আগে ধুয়ে কিছুক্ষন ভিজিয়ে রাখলে খসে যাওয়ার ভয় থাকে না।

বিস্কুটের প্যাকেট এক টুকরো ব্লাটিং পেপারে রেখে দিন। বিস্কুট নরম হবে না।

ছানা কাটানোর জন্য লেবুর রসের বদলে ফুটন্ত দুধে এক চামচ দই ফেলে দিন ছানা নরম হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.