কেন তুলসী পাতা ব্যবহার করা উচিৎ নয় দেবাদিদেব মহাদেবের পূজাতে?

নিউজ ডেস্ক: সংসারের মঙ্গল কামনায় আমরা নানা ধরনের কাজকর্ম করে থাকি।তার মধ্যে একটি হল বাড়িতে তুলসি গাছ রাখা।কারন আমরা তুলসি গাছকে শুভ বলে মনে করি যার সংস্পর্শ এলে নানা উপকার পাওয়া যায়।তবে তুলসি পাতা ব্যবহার করার ক্ষেত্রে সতর্ক হওয়ার জরুরি কারন এমন কিছু কাজ আছে সেখান তুলসি পাতার ব্যবহার করা মানে দেবী তুলসি রুষ্ট করা।যার ফল  মারাত্মক ক্ষতিকারক হয়ে উঠতে পারে আপনাদের জন্য।তাই বাড়িতে তুলসি গাছ থাকলে কিছু কিছু বিষয়ে অবশ্যই জেনে রাখা উচিত আপনাদের।

শিব ঠাকুরের পুজোতে কখন তুলসি পাতা ব্যবহার করা উচিত নয়।কারন পৌরাণিক কাহিনী অনুযায়ী, দেবী তুলসির ছিলেন রাক্ষস রাজ জলন্ধর স্ত্রী।জলন্ধরকে দেবেরা আশীর্বাদ দিয়েছিলেন অমরত্বের।এরফলে জলন্ধর ত্রিভুবন জয়ের নেশায় দেবতাদের আক্রমণ করেন। তখন দেবতাদের রক্ষা করার জন্য  দেবাদিদেব মহাদেব ছলনার আশ্রয় নিয়ে রাক্ষস রাজকে বধ করেন।যার ফলে শিব ঠাকুরের উপর দেবী তুলসি ক্রোধিত হয়ে অভিশাপ দেয় যে তাঁর পুজোয় কখনও তুলসি পাতা ব্যবহার করা হবে না। 

দিনক্ষণ দেখে তুলসি পাতা ছেঁড়ার উচিত।কারন  একাদশী, রবিবার, সূর্য এবং চন্দ্র গ্রহণের সময়  তুলসি পাতা ছিড়লে  দেবী তুলসি খুব রুষ্ট হন এবং তুলসী পাতা অভিশাপ দেয়।তাই এই দিনগুলোতে তুলসী পাতা ছেঁড়া একদমই উচিত নয়। 

এছাড়াও গণেশ ঠাকুরের পুজোতেও তুলসি পাতা ব্যবহার উচিত নয়।কারন হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী  এক সময়ে শ্রী গণেশ এবং দেবী তুলসির মধ্যে বিবাদ সৃষ্টি হয়।যার ফলে  শ্রী গণেশ এবং দেবী তুলসি একে অপরকে  অভিশাপ দিয়েছিলেন।দেবী তুলসি সেই অভিশাপের কারনেই গণেশ পুজোয়  তুলসি পাতা ব্যবহার করা নিষেধ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.