তিব্বত স্বাধীন হলে ভারতবর্ষের কতোটা লাভ হবে জানেন?

নিউজ ডেস্ক  – তিব্বতের স্বাধীনতা নিয়ে অনেকেরই নানা মত রয়েছে। কিন্তু আসল ব্যাপার হলো তিব্বত স্বাধীন রাষ্ট্র হলে ভারতের সঙ্গে চীন সীমান্তে সংঘর্ষ হ্রাস পেতে পারে বলে অনুমান করা হয়। 

পূর্বের ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যাবে ১৯৫১ সাল পর্যন্ত স্বাধীন ছিল তিব্বত। কিন্তু এরপর থেকেই গনম্যান্ডেট ছাড়াই চীন তিব্বত দখল করে নেয়। তবে বর্তমানে চীনাদের অনুযায়ী ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল স্বাধীন হলে ইন্ডিয়ার সঙ্গে চীনের সীমান্ত হ্রাস পেত এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে একচেটিয়া বাণিজ্য হতে পারত। 

অন্যদিকে শুধু মাত্র চীন নয়এরকম ভাবনা চিন্তা নিয়ে এগোচ্ছে ভারতও। তবে সেটা সিকিমের ক্ষেত্রে। এমনকি সেই কারণের জন্য কাশ্মীরকে আদরে রেখেছে ভারত। তবে বর্তমানে  তিব্বতের স্বাধীনতার চাইতে অনেক বেশি জরুরি আঞ্চলিক শান্তি এমনটাই দাবি অঞ্চলবাসীর। 

উল্লেখ্য,  সকল দেশই তার প্রতিবেশী দেশকে কোন না কোন সুবিধার্থে চেয়ে এসেছে। ঠিক যেমন পাকিস্তান বরাবরই কাশ্মীরকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে একটি স্বাধীন দেশ হিসেবে চেয়েছিল। তাতে অনেক লাভবান হতো পাকিস্তান।  তার একমাত্র কারণ হল কাশ্মীরের জন্য দ্য এশিয়া এখন অস্ত্রগর্ভ। কারণ সেখানেই বর্তমানে রয়েছে পরমাণু, বোমা ,সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ আর অবিশ্বাসের ঘাঁটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.