জারজ সন্তানদের ফেলে দেওয়ার জন্য কোন দেশের বিশেষ বাক্সের ব্যবস্থা থাকে জানেন?

নিউজ ডেস্ক –  অধিকাংশ ক্ষেত্রে দেখা যায় সন্তান জন্ম দেওয়ার পর তার লালন পালনে অক্ষম হলে অধিকাংশ মায়েরা রয়েছেন যারা সন্তানদের রাস্তায় অথবা নোংরা স্তুপের ফেলে দিয়ে যান। এমন বহু খবর টিভিতেও দেখা যায়। কিন্তু বর্তমানে শিশুদের রাস্তায় না ফেলে এমন একটি বাক্স তৈরি করা হয়েছে যেখানে মায়েরা নিজেদের পরিচয় গোপন করে শিশুদের রেখে যায়। এমন অভিনব প্রকল্পটি দেখা যায়  যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ এবং ইকুয়েডেরে।

এই উন্নয়নশীল দেশগুলিতে নজর দিলে দেখা যায় এখানে রাস্তার উপরে এক বিশেষ প্রক্রিয়ায় তৈরি করা বাক্স রয়েছে। যে বাক্সটির উপর একটি বোতাম থাকে। কোন মা যদি তার সন্তানকে রাস্তায় রেখে দিতে চান তারা এই বাক্সটির বোতাম পেশ করলে সেটি খুলে যায়। এরপরই বাক্সের মধ্যে শিশুটিকে শুইয়ে দেয় মা। এমনকি বাক্সের মধ্যে একটি চিঠি থাকে মায়ের জন্য। যেখানে লেখাটাকে আপনার শিশুকে খুব যত্ন সহকারে মানুষ করা হবে। আপনার পরিচয় গোপন করে।

পরবর্তীতে শিশুটিকে বাক্সে রেখে দেওয়ার পর সেখানকার নানেরা এসে শিশুটিকে নিয়ে  তিন মাস পর্যন্ত নিজের কাছে রেখে লালন-পালন করে। এই তিন মাসে যদি কোন মা তার শিশুকে ফিরিয়ে নিয়ে যেতে চায় তাহলে নিতে পারে। কিন্তু যদি এরকম না হয় তাহলে শিশুটিকে দত্তক দেওয়া বন্দোবস্ত করে নানেরা। অভিনব প্রক্রিয়া থাকার কারণে বহু মহিলা গর্ভপাতের পথ বেছে না নিয়ে এই বিকল্পটি বেছে নেয়। বর্তমানে বিষয়টি গোটা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়ায় ব্যাপক সাড়া পেয়েছে।  সুতরাং যে সকল দেশে এই অভিনব প্রক্রিয়া চালু রয়েছে সেখানে অ্যাবরশনের হার অনেকাংশে কমে গিয়েছে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.