চালতায় উপস্থিত আয়রন রক্তের লোহিত রক্তকনিকার কার্যক্রমে সহায়তা করে। চালতার ১১ টি উপকারিতা

নিউজ ডেস্কঃ বাঙালির খাদ্যতালিকায় এমন কিছু ফল আছে যা একাধিকভাবে খাওয়া যেতে পারে। অর্থাৎ রান্না করার পাশাপাশি আচার করেও খাওয়া যেতে পারে। ঠিক তেমনই এক ফল হল চালতা।

১ চালতা ক্যালশিয়াম, ফসফরাস, আয়রন, ভিটামিন এ, বি এবং সি এর ভালো উৎস।

২) প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি থাকায় এই ফল স্কার্ভি ও লিভারের রোগ প্রতিরোধ করে।

৩) চালতায় রয়েছে বিশেষ ধরণের কিছু অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা জরায়ু ও স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধ করে।

৪) চালতায় রয়েছে প্রচুর পরিমানে আঁশ যা বদহজম ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

৫) চালতায় উপস্থিত আয়রন রক্তের লোহিত রক্তকনিকার কার্যক্রমে সহায়তা করে।রক্তের সংবহন ঠিক রাখে।চালতার বিভিন্ন উপাদান হার্টের নানা রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে।

৬) চালতা পেটের নানা অসুখ প্রতিরোধে সহায়তা করে।ডায়রিয়া সারাতে কাঁচা চালতার রসের তুলনা নেই।

৭) রক্তের খারাপ কোলেস্টেরল ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে রাখতে সহায়তা করে চালতা।

৮) ঠাণ্ডা ও কাশির জন্য পাকা চালতার রস চিনি মিশিয়ে খেলে উপকার পাওয়া যায়।

৯) কিডনির নানা রোগ প্রতিরোধেও সহায়তা করে চালতা।

১০) কাঁচা চালতা জলে মিশিয়ে চুলের গোড়ায় নিয়মিত লাগালে চুল পড়া কমে যায়।

১১) শুধু ফল নয় চালতার মূল ও পাতারও রয়েছে ওষুধিগুন।মচকে গিয়ে ব্যাথা পেলে সেখানে চালতা গাছের মূল ও পাতা পিষে প্রলেপ দিলে ব্যাথা কমে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.