ত্বকের পক্ষে ভালো ঠিক তেমনি চুলের পক্ষেও ভালো। মধু, পাকা পেঁপের পাশাপাশি যে ৪ টি জিনিস ব্যবহার করা উচিৎ

নিউজ ডেস্কঃ  চুলের মধ্যেই মানুষের সৌন্দর্যটা লুকিয়ে থাকে বিশেষ করে নারীদের ক্ষেত্রে।তাই চুলের বিষয় নারীরা খুবই সচেতন।তাই কি করলে চুলের ভালো সেইসব জিনিস ব্যবহার করে থাকে কিন্তু অবশেষে খুব একটা লাভ পাওয়া যায় না।তাই এটা একটি বড়ো সমস্যার কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে মানুষের কাছে।আর এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া উপায়টা মানুষের কাছে অজানা।তাই জেনে নিন যে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন ঘরে বসেই।হ্যাঁ ঠিকই শুনছে ঘরোয়া উপায়ে চুলের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা যেমন- চুল পড়া, খুশকি, ইত্যাদি সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।তাহলে জেনে নিন কিছু ঘরোয়া উপায়েগুলি সম্পর্কে।

১। মধুঃ মধু যেমন আমাদের ত্বকের পক্ষে ভালো ঠিক তেমনি চুলের পক্ষেও ভালো।তাই পরিমানমতো মধু নিয়ে সেটিকে ভাল করে চুলের গোড়া থেকে স্ক্যাল্পে আধঘণ্টার জন্য লাগিয়ে রাখুন।তারপর ধুয়ে ফেলুন।এটি চুলের পক্ষে খুবই উপকারী। এছাড়াও একটি পাত্রে অল্প  মধু, দই এবং অলিভ নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।তারপর আধঘণ্টার জন্য লাগিয়ে রাখুন মাথায়।তারপর উষ্ণ গরম জল দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।মধু ময়শ্চারাইজারের কাজ করে।

২। পাকা পেঁপেও আমাদের চুলের জন্য উপকারী।তাই একটা পাকা পেঁপে নিয়ে তাতে দই মিশিয়ে একটি পেস্ট বানিয়ে নিন।তারপর ভালো করে  চুলে  লাগিয়ে রেখে দিন আধ ঘণ্টার জন্য।এরপর ধুয়ে ফেলুন।এটি সপ্তাহে একদিন ব্যবহার করুন।এতে উপকার পাবেন।

৩। নারকেল তেল আমাদের চুলের ভালো রাখতে সাহায্য করে।তাই রাতেরবেলায় মাথায় তেল লাগিয়ে রাখুন।তারপরের দিন সকালবেলায় উঠে ডিমের সাদা অংশ লাগিয়ে রাখুন। আধঘণ্টা পর মাথা ভালো করে ধুয়ে নিন।

৪৷ যাদের চুল  ড্রাই তারা একটি পাত্রে এক চামচ মেথি দানা নিয়ে সেটিকে পেস্ট করে নিন তারপর এরসাথে দই মিশিয়ে নিন।এরপর ওই পেস্টটি  মাথায় আধ ঘণ্টা জন্য রেখে  নিন।তারপর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন।৫। চুলের পক্ষে বিয়ার ব্যবহার করাও ভালো।তাই শ্যাম্পু করার পর মাথা বিয়ার দিয়ে ধুয়ে নিন এছাড়াও আপনারা বাজার চলতি বিয়ার শ্যাম্পুও ব্যবহার করতে পারেন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.