হাঁটার উপকারিতা গুলি ঠিক কি কি?

নিউজ ডেস্ক – সুস্থ হোক কিংবা অসুস্থ মানুষ চিকিৎসকের সর্বপ্রথম পরামর্শ থাকে কঠোর ব্যায়াম করার পরিবর্তে দিনে অন্তত ৩০ মিনিট হাঁটা উচিত। হাঁটলে একদিকে যেমন শরীর ভালো থাকে অন্যদিকে সমস্ত রোগ শরীর থেকে বিদায় নেয়।  তবে অনেকেই বুঝে উঠতে পারেন না ঠিক কোন সময় কত মিনিট হাঁটা প্রয়োজন। 

চিকিৎসকদের মতে মর্নিংওয়াকের  থেকে বিকেলে হাটা বেশি উপকারী। কারণ ঘুম থেকে উঠেই হাঁটতে যাওয়া উচিত নয়। কমপক্ষে ৩০ মিনিট পর হাটা শুরু করতে হবে। একজন সুস্থ মানুষের জন্য প্রতিদিন ৩০ মিনিট হাঁটা যথেষ্ট।  তবে সপ্তাহের সাত দিনের বদলে ৫ দিন হাটা যায়। মোটকথা এক সপ্তাহে ১৫০ মিনিট হাঁটা উচিত একজন সুস্থ মানুষের ক্ষেত্রে। এছাড়াও যারা শারীরিক দিক থেকে দুর্বল অথচ হাঁটতে চান তারা ধাপে ধাপে অর্থাৎ ১০ মিনিট হাঁটার পর কিছুটা বিশ্রাম নিয়ে আবার ২০ মিনিট হাঁটতে পারেন। এক্ষেত্রে হাঁটা শুরু করার প্রথম ৫-১০ মিনিট এবং শেষের ৫-১০ মিনিট আস্তে হেঁটে শরীরকে ওয়ার্ম আপ ও ওয়ার্ম ডাউন করতে হবে।

প্রত্যেকদিন হাঁটার উপকারিতা হলো- 

১. ভালো ঘুমে সাহায্য করে। 

২. হাড় ও পেশি মজবুত করে। 

৩. ১৫ মিনিট হাঁটলে ৫৬ ক্যালোরি শক্তি খরচ হয়, ওজন কমে। 

৪. সৃজনশীল চিন্তা করতে সাহায্য করে। 

৫. মানসিক চাপ, উদ্বেগ ও টেনশন দূর করে শরীর-মন প্রাণবন্ত রাখে। 

৬. রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। 

৭. ধমনির চাপ কমিয়ে হৃদরোগ প্রতিহত করে। 

৮. স্মৃতিশক্তি বাড়ায়খাওয়ার ঠিক আগে বা খাওয়া শেষ করেই হাঁটা উচিত না। যারা সকাল-বিকেল বা সন্ধ্যার পর হাঁটতে সময় পান না, তারা তিন বেলা খাওয়ার পর ১০ মিনিট করে হাঁটতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.