ইসরায়েলের পাশাপাশি বিশ্বের যে সাতটি জায়গা গুগল ম্যাপে খুঁজে পাওয়া যায়না

নিউজ ডেস্কঃ বর্তমান দিনে সমস্ত জায়গায় গুগল ম্যাপের অধীনে থাকে।তাই গুগলে পৃথিবীর কোন জায়গায় সার্চ করলে তার ডিটেলস পাওয়া যায় ঘয়ে বসেই।তাই এখন কোন অজানা জায়গায় চেনার পথতা খুবই সহজ হয়ে গেছে।তাই আমরা মনে করি যে পৃথিবীর সমস্ত জায়গায় খুঁজে পাওয়া যেতে পারে গুগ্ল ম্যাপের মাধ্যমে।কিন্তু আপনার কি জানেন যে এই এমন কিছু জায়গা আছে যা গুগল ম্যাপে খুঁজে পাওয়া যায় না।তাই আজ এই জায়গাগুলি সম্পর্কে আপনাদেরকে জানাব যেগুলি  গুগল ম্যাপে খুঁজে পাওয়া যায় না।

 ন্যাটোর বিমানঘাঁটি

সামরিক জোট ন্যাটোর এই ঘাঁটিকে গুগল ম্যাপে খুজ পাওয়া যায় না।ওই ঘাঁটিটি অবস্থিত জার্মানিতে।ওই জায়গায়টিতে মাইক্রোসফটের বিংয়ে ব্লক করা নেই  তবে গুগল ম্যাপে ওই জায়গাটি পিক্সেল করে দেখানো হয়।আর ওই জায়গাটি হল গিয়েলেনকির্চেন।

ন্যাশনাল সিকিউরিটি ব্যুরো

ন্যাশনাল সিকিউরিটি ব্যুরো গুগল খুঁজে পাওয়া যায় না।এটি হল চীনের একটি জাতীয় নিরাপত্তা ব্যুরোর সদর দপ্তরটি যেখানে চীনের কয়েকটি গোয়েন্দা সংস্থার কার্যালয় রয়েছে।আর এটি তাইওয়ানে অবস্থিত

রোজেজ

 স্পেনে অবস্থিত রোজেজ জায়গাটিও  গুগল ম্যাপে খুঁজে পাওয়া যায় না।মনে করা হয় যে ওই জায়গাটি থেকে মার্কিন বিমানবাহিনীর ৮৭৫তম আধুনিক বিমানটি নিয়ন্ত্রণ করা হয় এবং বিভিন্ন সতর্কবার্তাও পাঠানো হয়

ভলক্যাল বিমানঘাঁটি

নেদারল্যান্ডসে অবস্থিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই ঘাঁটিটিকেও গুগল ম্যাপে খুঁজে পাওয়া যাবে না। একটি সূত্রে খবর থেকে জানা যায় যে  এই বিমানঘাঁটিতে স্নায়ুযুদ্ধের সময়কার ২২টি পারমাণবিক বোমা লুকিয়ে রেখেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

ইসরায়েল

ইসরায়েলও এমন একটি জায়গা যা গুগল ম্যাপে খুঁজে পাওয়া যাবে না। 

লোস ডোলোরেস

লোস ডোলোরেস হ্যালিপোয়েরতো ডি কার্টাগেনা এমন একটি জায়গা যার সম্পর্কে কোন তথ্যও খুব একটা জানা নেই কারও।আর স্পেনের এই জায়গাটির  গুগল ম্যাপে খুজলেও  দেখা যাই না ।

হাডসপেথ কাউন্টি হাডসপেথ কাউন্টি হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোর সীমান্ত এলাকা।এই সীমান্ত থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত  মেক্সিকোর সিউদাদ জুয়ারেজ নামক এই  এলাকাটিকে  গুগল ম্যাপে পাওয়া যায় না।   

Leave a Reply

Your email address will not be published.