স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়। হাঁটার ৫ টি অসাধারন উপকারিতা

নিউজ ডেস্ক: বর্তমান দিনে  কাজের চাপে জিমে গিয়ে ব্যায়াম করার মতো সময় মানুষের হাতে থাকেনা। কিন্তু  স্বাস্থ্যকে সুস্থ রাখতে শরীর চর্চা করা খুবই জরুরী।অতিরিক্ত সময়  ব্যায়ামের জন্য বের না করতে পারলেও অন্তত আধাঘন্টা বের করায় যেতে পারে শত ব্যস্ততার মধ্যেও।এই আধাঘন্টা আপনাদের শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য যথেষ্ট।আধাঘন্টা করে প্রতিদিন সকাল কিংবা বিকেলে হাঁটুন এতেই পাবেন অনেক উপকার।প্রতিদিন সকালে বা বিকেলে আধ ঘণ্টা করে হাঁটলে কি কি,উপকার পাবেন?

১) হৃদপিন্ডকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে :-প্রতিদিন হাঁটাচলা করার ফলে হৃদপিন্ডে কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এবং হার্টের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। সাম্প্রতিক এক গবেষণা থেকে জানা যায় যে যে সমস্ত ব্যক্তি নিয়মিত হাঁটাচলা করে তাদের হার্টের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কমে গিয়েছে। 

২) ডায়াবেটিস:-আপনি কি ডায়াবেটিসের ভুগছেন? তাহলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে প্রতিদিন হাঁটাচলা করুন। সাম্প্রতিক প্রকাশিত এক পত্রিকা দাবি করেছে যে  চিকিৎসা ছাড়া শুধুমাত্র হাঁটাচলা করার ফলে ৬০% ডায়াবেটিস রোগীরা এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেয়েছে। এইজন্য  ডায়াবেটিসের সমস্যা দূর করতে প্রতিদিন হাঁটাচলা করুন।

৩) ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে:-শরীরে জমে থাকা বাড়তি  মেদ ঝরিয়ে ওজনকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে প্রতিদিন নিয়ম করে হাঁটাচলা করুন। কারণ নিয়মিত হাঁটাচলা করার ফলে দেহের ক্যালরি বার্ন হয় যার ফলে  আমাদের পেশিগুলো আরো সতেজ ও প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। তাই ওজনকে যদি নিয়ন্ত্রণে রাখতে চান তাহলে প্রতিদিন হাঁটাচলা করুন।  

৪) স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়:- চিকিৎসকেরা জানাচ্ছে যে বর্তমানে মানুষ প্রযুক্তি এতটাই নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে যে  সবকিছু ইন্টারনেটের উপর ছেড়ে দেয় যার ফলে আমাদের মনে রাখার কোনো প্রয়োজন পড়ে না এইজন্য  আমাদের স্মৃতিশক্তির ক্ষমতা ক্রমশ হ্রাস পাচ্ছে। তাই স্মৃতিশক্তিকে প্রখর করার প্রতিদিন হাঁটাচলা করা উচিত।

৫) জয়েন্ট ব্যথা হয় না:-বর্তমান দিনে বেশিরভাগ মানুষই জয়েন্টের ব্যথায় ভোগে। জয়েন্টের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে হলে নিয়মিত হাঁটাচলা করুন।কারন নিয়মিত হাঁটাচলা করার  ফলে শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের হাড়গুলো সতেজ থাকবে যার ফলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.