মিউজিয়াম থেকে গায়েব হয়ে গিয়েছে অ্যানাবেল

নিউজ ডেস্ক  –     হলিউডের হরর স্পেশাল সিনেমার মধ্যে উল্লেখযোগ্য দ্যা নান,  দ্য কনজিউরিং। অর্থাৎ এই ভুতুড়ে সিনেমাগুলি এতটাই ভয়ানক যে কোন দুর্বল হৃদয়ের ব্যক্তি দেখলে রীতিমতো হাড় হিম হয়ে যাবে তার। অর্থাৎ যে ব্যক্তি দ্য কনজিউরিং বিষয়ে অবগত সে নিশ্চয় অ্যানাবেল সম্পর্কেও ভালো করেই জানে। সম্প্রতি এমন খবর প্রকাশ এসেছে যে মিউজিয়ামে অ্যানাবেলকে  রাখা হয়েছিল সেখান থেকে গায়েব হয়ে গেছে। তবে কোথায় যেতে পারে ভুতুড়ে পুতুলটি! 

দীর্ঘ দেড় দুই বছর ধরে করোনা  আবহের কারণে বন্ধ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মনোরো এলাকার ওয়ারেন’স অকাল্ট মিউজিয়াম। যেখানেই মিউজিয়াম বন্ধের কারণে ঘরবন্দী হয়ে রয়েছে অ্যানাবেল।  তবে হঠাৎই উইকিপিডিয়ার একটি পেজে উল্লেখ করা হয়েছিল মিউজিয়াম থেকে গায়েব হয়ে গিয়েছে অ্যানাবেল।  কার্যত বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই রীতিমত ভয় ধরে গিয়েছিল গোটা শহরবাসীর। যদিও পরবর্তীতে উইকিপিডিয়ার পেজে করা ভুল লেখাটি সংশোধন করে দেওয়া হয়। 

উল্লেখ্য,  যে সকল ব্যক্তি এ পুতুল থেকে নিজের বাড়িতে রেখেছে সৌন্দর্য বৃদ্ধির কারণে তারা প্রত্যেকেই কোনো না কোনো অবিশ্বাস্যকর কাহিনীর  সাক্ষী থেকেছে। অনেকের কথাই পুতুলটি রাতে ঘরের এদিক-ওদিক চলাফেরা করতে পারে এমন কি খাতা-কলমে নিজের বক্তব্য লিখে প্রকাশ করে।  এই বিষয়টি সম্পর্কে তন্ত্রসাধকদের বক্তব্য  অ্যানাবেলার মধ্যে রয়েছে শিশুর ভুতুড়ে আত্মা।  আর কারণে এরকম ভৌতিক কর্মকাণ্ড করে বেড়ায় সে।  এর জেরেই  পুতুলটির মালিক কার এক্সিডেন্ট করে মারা গিয়েছিল। সামান্য এক পুতুল  নিয়ে এত ভয় ছড়ানোয় বর্তমানে তাকে মিউজিয়ামে বন্দি করে রাখা হয়েছে।  যদিও যারা  বিষয়টিকে গুজব বলে মনে করেন তারা মানতে পারেন কিন্তু আসলেই সত্যি ভৌতিক অস্তিত্ব রয়েছে অ্যানাবেলের। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.