প্লাস্টিক সার্জারি করে নিতম্ব বাড়িয়ে যেভাবে বিপদে পড়েছিল

নিউজ ডেস্ক – আজকাল বহু মহিলাদের ক্ষেত্রে দেখা যায় নিজেদের আরো রূপবতী করতে অনেকেই প্লাস্টিক সার্জারি করে থাকেন। যেগুলোকে বৈজ্ঞানিক ভাষায় বলা হয় কসমেটিক সার্জন। যদিও এই সার্জারির পরে অনেক মেয়েরাই তাদের রূপ বৃদ্ধি করেছেন কিন্তু বিশেষজ্ঞদের মতে কঠোর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে এই সকল সার্জারির ওপর। কারণ অনেক ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে সার্জারি করার কিছুদিন পরেই মৃত্যু হয়েছে বহু মহিলার। সেরকমই একটি জলজ্যান্ত তরুণীকে দেখা গেল যে কসমেটিক সার্জারি করে নিজের নিতম্ব বৃদ্ধি করেছেন। চার কারণে আজ এক ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাকে।

দেখা গিয়েছে সোফি এলিস নামে এক তরুণী নরওয়েজিয়ান ভিডিও ব্লগার। তিনি তার রূপ বৃদ্ধি করতে মাত্র ২০ বছর বয়সে কসমেটিক সার্জন দিয়ে নিজের নিতম্ব বৃদ্ধি করেছেন।  তবে নিজে অভিজ্ঞতা শেয়ার করে সোফি এলিস জানান, নিজে একজন ব্লগার হওয়ার দরুন বৃদ্ধি করতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। তবে ইউটিউব ঘেঁটে বহু সার্জন দেখার পর এক প্রাইভেট হসপিটালে বিলাসবহুলতা ও পরিচ্ছন্নতার মাঝেই একজন চিকিৎসক সার্জারি করে। তবে স্বভাবতই সার্জারির পরে প্রচুর ব্যথা থাকত। তবে সেই নিতম্ব থেকে ছুট কারা পেতে চান। 

চিকিৎসা বিজ্ঞানের যেকোনো সার্জারি মানেই দেহের কোন অংশ থেকে অধিক মেদ কেটে নিয়ে যে অংশের বৃদ্ধি বা যেখানে সার্জারি করা হবে সেখানে ট্রান্সপারেন্ট করে। সেই ভাবেই সোফি এলিসের চিকিৎসা করা হয়েছে। তবে সোফি জানতে পারে এই সার্জারিতে ছোট সিলিকন প্রতিস্থাপন করতে হবে। এবং নতুন করে আলোচনায় তিনি জানতে পারেন যে সিলিকন ব্যবহার করেছেন নিতম্বের আকার বাড়াতে সেটি আসলে ব্যবহার হয় স্তনের আকার বাড়াতে। তাই সম্পূর্ণরূপে সকল সিলিকন বা দিতে পারবেন না তিনি। প্রথমে কতগুলো ছোট ছোট সিলিকন প্রতিস্থাপিত করে বড় সিলিকন বাদ দিতে হবে। 

তবে এই অভিজ্ঞতার পর সোফি সকল মেয়েদেরকে এই বার্তাটা গিয়েছেন যে যাতে চাকচিক্য দেখে না ভুলে খুব সর্তকতা অবলম্বন করে বহু জায়গায় খোঁজ খবর নিয়ে এরকম সার্জারি যাতে কেউ করে। এরকম হটাৎ আট করে সার্জারি করলে পরে নিজেদেরই পস্তাতে হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.