শুধুমাত্র পুরুষের কণ্ঠস্বর শুনতে পায়না পৃথিবীর কোন মহিলা?

নিউজ ডেস্ক গোটা পৃথিবীতে কত ধরনের ঘটনা ঘটে যেগুলোর সম্পর্কে আমরা এখনো অজ্ঞাত। কিন্তু এমন কিছু ঘটনা ঘটে আমাদের অলক্ষ্যে যা শুনলে রীতিমত অবাক হয়ে যাব আমরা।  এমনই এক ঘটনার সাক্ষী থাকলো চীন।  চীনে এক ধরনের মহিলার বসবাস করেন যিনি শুধুমাত্র পুরুষের কণ্ঠস্বর শুনতে পান না।  না হলে মহিলা থেকে শুরু করে বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্রের আওয়াজ তার কান পর্যন্ত পৌঁছায়।  পুরুষের ক্ষেত্রেই দেখা যায় সমস্যা।  এই নিয়ে রীতিমতো চিন্তায় পড়েছে চীনের বাসিন্দা মিস চেন। 

আক্রান্ত মিস চেন চিকিৎসকের কাছে তৎক্ষণাৎ ছুটে যান।  তিনি গিয়েও বিস্তারিতভাবে জানান যে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার সময় তার কানের রিংগিংয়ের মতো একটি আওয়াজ বাজছিলো। এরপরই তার বমিও হয়। প্রাথমিক দিকে তিনি এটির বেশি গুরুত্ব না দিলেও সকালে উঠে তার বয়ফ্রেন্ডকে কোন কথাই তার কানে ঢুকে ছিল না।  তবে পাড়া-প্রতিবেশী মহিলাদের কথা শুনতে পারলেও শুধুমাত্র পুরুষদের ক্ষেত্রে ঘটছিল ব্যাতিক্রম। বিষয়টি জানার পর লিন জিয়াওকিং নামের এক মহিলা চিকিৎসক তার  চিকিৎসা শুরু করে । এবং সেখানেই ধরা পড়ে আসল রহস্য।  

চিকিৎসকদের মতে এটা খুবই বিরল এক ‘লো ফ্রিকোয়েন্সি হিয়ারিং লস’-এর ঘটনা। এই ডিজিজের ক্ষেত্রে যে সমস্যাটি হয় সেটি হলো মানুষের কানের মধ্যে কিছু সূক্ষ্ম পশম থাকে।  যার কারণে মানুষ বিভিন্ন আওয়াজ শুনতে সক্ষম হন।  কিন্তু বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে পশম অনেকের অবলুপ্তি ঘটে কিংবা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকে।  মিস চেনের ক্ষেত্রেও এরকম কিছু ঘটনা ঘটেছে।  যদিও কিভাবে এই বিরল রোগের চিকিৎসা করা যায় তা নিয়ে রীতিমতো বিজ্ঞানের সঙ্গে যুদ্ধ করে চলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.