কোন দেশে যানবহনে যাত্রীরা সামনে বসে থাকে এবং চালক পেছনে বসে সেই গাড়িটি চালায়?

নিউজ ডেস্ক:- জানেন কি পৃথিবীতে এমন ও দেশ আছে যেখানকার এক বিশেষ জাতিরা গাছের ওপর তাদের ঘর বানায়। এশিয়ার দক্ষিণ পূর্ব অঞ্চলে ইন্দোনেশিয়া দেশ অবস্থিত। ইন্দোনেশিয়ার সরকারি নাম রিপাবলিক অফ ইন্দোনেশিয়া। এটি বিশ্বের চতুর্থ জনবহুল দেশ। দেশটির মোট আয়তন ১৯,০৪,৫৬৯ বর্গ কিলোমিটার ও রাজধানী বোর্নিও। দেশটির সরকারি ভাষা ইন্দোনেশিয়ান এছাড়াও এখানে 700 র দেশী ভাষায় কথা বলা হয়।

ইন্দোনেশিয়া দেশের কিছু অজানা তথ্য হল

1. ইন্দোনেশিয়ার সাধারণত একটি মুসলিম রাষ্ট্র এছাড়াও এখানে অল্প সংখ্যক খ্রিস্টান, রোমান ক্যাথলিক, হিন্দু বুদ্ধ ও প্রোটেস্ট্যান্ট ধর্ম পালন করেন।

2. ইন্দোনেশিয়া একটি মুসলিম রাষ্ট্র হওয়া সত্বেও এখানে হিন্দু দেব-দেবীর পূজা করা হয়।

3. এই দেশটিতে এক  যানবাহন দেখা যায় যে যানবহনে যাত্রীরা সামনে বসে থাকে এবং চালক পেছনে বসে সেই গাড়িটি চালায়।

4. এই দেশের 88% মানুষই মুসলিম এবং এই দেশে রয়েছে পতিতালয় যা অন্য সকল মুসলিম দেশের কাছে হালাল।

5. ইন্দোনেশিয়ার একটি দ্বীপে এক ধরনের জাতি বসবাস করে যে জাতিরা সাধারণত গাছের ওপর তাদের ঘর বানায়।

6. ইন্দোনেশিয়ার ছেলে মেয়েদের বিবাহের পূর্বে হজ করা আবশ্যক। কোন বিবাহের পূর্বে ছেলে ও মেয়ে দুজনে হজ করে এসেছে কিনা এটি যাচাই করে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়।

7. ইন্দোনেশিয়ার প্রায় 40% যুবক-যুবতী বিবাহের পূর্বে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করে। যা বন্ধ করার জন্য এই দেশে একটি আইন পাশ করা হয়।

8. ইন্দোনেশিয়ার বালি অঞ্চলে হনুমানদের পুজো করা হয়। এখানে বাস করা অধিবাসীরা হিন্দু অবলম্বী এবং তারা মনে করে বাঁদর হলো দেবতা। এখানে একটি হনুমান মন্দির রয়েছে যেটি শুধুমাত্র হনুমানদের জন্য এখানে কোন মানুষ প্রবেশ করতে পারে না।

9. ইন্দোনেশিয়ার সবথেকে সুন্দর পর্যটক কেন্দ্র হল বালি দীপ। দীপ টিতে রয়েছে পাল্লার, স্পা, ডিস্কো দেশটি এতটাই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন যে এখানে একটি পাতা পড়লেও সেটি কুড়িয়ে ডাস্টবিনে ফেলা হয় এই দ্বীপটি তার সৌন্দর্য দিয়ে পর্যটকদের মুগ্ধ করেছে।

10. দেশটিতে দেহব্যবসা আইন স্বীকৃত না হলেও। এখানকার পর্যটন কেন্দ্র রয়েছে এর সুব্যবস্থা।

11. এখানে সূর্য উদয়ের প্রথমে স্নান করার নিয়ম রয়েছে। সূর্যাস্তের পর এখানে কেউ সমুদ্রে স্নান করতে পারবেন না এমনকি স্নান করার সময় কেউ সবুজ পোশাক পরিধান করতে পারবে না।

12. বালির আরেকটা বৈশিষ্ট্যগুলো এর সমুদ্র তলে অবস্থিত বিষ্ণুমন্দির। এই মন্দিরটি আনুমানিক 5000 বছরের পুরনো।

13. দেশটিতে 130 টির মত জীবিত আগ্নেয়গিরি রয়েছে। প্রায় প্রতি বছরই কোনো না কোনো আগ্নেয়গিরি থেকে অগ্নুৎপাত হয়। আগ্নেয়গিরির লাভা রং মূলত লাল হলেও ইন্দোনেশিয়ার পূর্ব জাভা অবস্থিত আর্জেন্ট আগ্নেয়গিরির লাভা রং নীল। যা দেখতে সত্যিই অপূর্ব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.