পরমাণু যুদ্ধ হবে বলে মাটির নীচে কোন দেশ বাঙ্কার তৈরি করছে?

নিউজ ডেস্ক: ভবিষ্যতে কি পরমাণু যুদ্ধ হবে? এই নিয়ে অনেক তথ্য এবং গবেষণা আছে। কিন্তু এমন দেশের নাম শুনেছেন যারা ভেবেই রেখেছে যে ভবিষ্যতে যুদ্ধ হবেই। আর সেই কথা ভেবে আগেভাগেই তার প্রস্তুতি সেরে রেখেছে। ইউরোপের পশ্চিমে অবস্থিত  পৃথিবীর স্বর্গ নামে খ্যাত সুইজারল্যান্ড ভ্রমণ প্রেমি মানুষের কাছে সব থেকে প্রিয় একটি জায়গা। প্রায় প্রতিটা মানুষের স্বপ্নের দেশ হল সুইজারল্যান্ড। এই মনকাড়া প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর দেশটির রাজধানী বার্ন ।

 সুইজারল্যান্ড সম্পর্কে কিছু প্রয়োজনীয় অজানা তথ্য:

1. অত্যন্ত ছোট এই দেশটির জনসংখ্যা প্রায় 86 লাখ। এখানকার প্রধান ভাষা সুইচ জার্মানি এছাড়াও সুইস ইতালি আর সুইস ফ্রান্স ও বলা হয়ে থাকে।

2. সুইজারল্যান্ডের রাজধানী বার্ন হলেও এখানকার সবথেকে বড় শহর   জিও রিক। এটি সুইজারল্যান্ড এর সবথেকে সুন্দর  শহর এখানে এয়ারপোর্ট এবং যান চলাচলের বিশেষ সুবিধা রয়েছে।

3. প্রতিবছর প্রায় লক্ষাধিক মানুষ সুইজারল্যান্ডে ঘুরতে আসে। এখানকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য  সকলের মন জয় করার জন্য যথেষ্ট। এখানকার সব থেকে ভালো কিছু জায়গা হল –

a. দা মিডরহন পিক ~. এটি ইউরোপের সব থেকে বড় পর্বত শীতকালে জমে যাওয়া বরফে স্কাইপিং এবং গরমকালে সাইকেলিং ও পর্বতারোহণের সুবিধা রয়েছে।

b. ইন্টার লেকেন~   সুইজারল্যান্ড এর সবথেকে ছোট  ও সুন্দর শহর হল ইন্টারলকেন। এখানে ভারতীয় প্রযোজক ইয়াশ চোপড়ার মূর্তি বানানো হয়েছে। আর এখানে ভারতীয় সিনেমা দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে এর শুটিং হয়েছিল। এছাড়াও ছোট ছোট কিছু রিজট লেক ও পাহাড় দ্বারা আবৃত এই শহর।

c .  লিউসড়িং~. সিউড়ি থেকে 25 কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত এই স্থান থেকে স্সুইজারল্যান্ড এর যে কোন জায়গা যাওয়ার বিশেষ সুবিধা আছে। এখানকার লেক ও ঐতিহাসিক ঘরবাড়ি মানুষের  দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

d .  সুইজারল্যান্ডের.রাইন জলপ্রপাত ইউরোপের সবথেকে বড় জলপ্রপাত। এই জলপ্রপাতের সুমধুর দৃশ্য সত্যিই অপূর্ব। এখানে যে কেউ চাইলে বোটিং করতে পারেন।

এছাড়াও বিভিন্ন এডভেঞ্চার পার্ক ন্যাশনাল পার্ক মানুষকে অন্য অভিজ্ঞতার সম্মুখীন করে।

e.  জাংফিরাউজ সবথেকে উঁচু রোমাঞ্চে ভরা পর্বত এখানে পৌঁছানোর জন্য রেল এর যাত্রা করতে হয় এবং এই যাত্রা সময় মানুষ সবুজে ভরা রাস্তা থেকে বরফে ভরা রাস্তা দেখার আনন্দ উপভোগ করতে।  

4. ভবিষ্যতের পারমাণবিক যুদ্ধ হবে মনে করা দেশগুলোর মধ্যে সুইজারল্যান্ড অন্যতম। এবং ভবিষ্যতে যদি পারমাণবিক যুদ্ধ হয়েও থাকে তার থেকে সুইজারল্যান্ড বাসীদের রক্ষার জন্য সুইজারল্যান্ডে মাটির নিচে বাঙ্কার তৈরি করা হয়েছে।

5. সুইজারল্যান্ডের মানুষের অত্যান্ত চকলেট প্রেমী এবং বিশ্বের সবথেকে বেশি চকলেট সুইজারল্যান্ড থেকে রপ্তানি করা হয়। এরা প্রচুর পরিমাণে মদ্যপান করে থাকে তাদের সব থেকে প্রিয় পানীয় হলো ওয়াইন।

6. পৃথিবীর সবথেকে ব্যয় বহুল দেশ গুলোর মধ্যে সুইজারল্যান্ড একটি। এখানকার মুদ্রা  সুইচ ফ্রাঙ্ক নামে পরিচিত এখানকার এক সুইস ফ্রাঙ্ক ভারতীয় 80 রুপির সমান।

7. সুইজারল্যান্ড এর মানুষ পশু প্রেমিও হয়ে থাকে এখানে পশুদের সমান অধিকার দেওয়া হয় কোনো রেস্তোরাঁয় যদি কোন পশু যায় তাহলে তাকে বিশেষ করে   আপ্যায়ন করা হয়।

8. সুইজারল্যান্ডের মানুষ অন্যান্য দেশের তুলনায় বেশি দিন বেঁচে থাকে এখানে পুরুষের গড় আয়ু 83 এবং মহিলাদের 85 হয়ে থাকে।

9. এখানে সাত হাজার লেক, অপূর্ব সুন্দর ব্রিজ রয়েছে।

10. পুরো বিশ্বের মধ্যে সুইজারল্যান্ডে সবথেকে বেশি পারিশ্রমিক দেওয়া হয়ে থাকে। এখানকার একজন শিক্ষক এর বার্ষিক বেতন হল 85 লক্ষ টাকা তারা বছরের 12 সপ্তাহ ছুটি করতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.