সাঁতার শেখা বাধ্যতামূলক কোন দেশে?

নিউজ ডেস্ক:— সাঁতার শেখা অনেকের কাছে সখের মতো আবার কারও কারও কাছে এটা একটা খেলার অংশ বিশেষ। কিন্তু কখনও শুনেছেন যে এটি বাধ্যতামূলক? ঠিক এমনই এক দেশ রয়েছে পৃথিবীতে। ইউরোপের উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত ডেনমার্ক পৃথিবীর সবথেকে সুখী দেশ গুলোর মধ্যে একটি। ডেনমার্কের অফিশিয়াল নাম   কিংডম অফ ডেনমার্ক। ডেনমার্কের অধিবাসীদের সবথেকে খোশমেজাজের বলে মনে করা হয়। ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগেন।

ডেনমার্ক সম্পর্কে কিছু মজাদার তথ্য~~

 1. ডেনমার্কের মানুষদের সবথেকে সুখী মানুষ বলে মনে করা হয়। এদের জীবন যাপন  অত্যান্ত বিলাসপূর্ণ ও আনন্দময়। 2006 সালে ডেনমার্কে জাতিসংঘ সবথেকে সুখী দেশ বলে ঘোষণা করে। তাদের এই আনন্দের কারণ বেশি ইনকাম, স্বাধীনতা, নিজের মত করে জীবন যাপন ও  সরকারি সুবিধা গুলি কে মনে করা হয়।

2. এখানকার 99% মানুষ শিক্ষিত। পড়াশোনা শেষ করার পর খুব সহজেই তারা চাকরি পেয়ে যায়। এখানে বেকার লোকের সংখ্যা খুবই কম এমন বললেও ভুল হবে হবে না  বেকার লোক নেই বললেই চলে। এখানকার প্রতিটি কর্মচারীর বার্ষিক বেতন 34 লাখ টাকার বেশি হয়ে থাকে।

3. পড়াশোনা করার জন্য এখানে কোন প্রকার অর্থ ব্যয় করতে হয় না সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এখানে শিক্ষা গ্রহণের সুবিধা রয়েছে।

4. পড়াশোনা ছাড়াও এখানে হাসপাতলে বিনামূল্যে চিকিৎসার সুবিধা দেওয়া হয়।

5. এই সকল সুবিধা পাওয়ার জন্য সরকারকে এক মোটা অংকের ট্যাক্স দিতে হয় ডেনমার্ক বাসীদের।

6. ডেনমার্কের চারপাশে সমুদ্র দেখা যায়। সমুদ্রে ঘেরা এই দেশের সকলে সাঁতারে পারদর্শী হয়ে থাকে। এখানকার সকলকে সাঁতার শেখানো হয়ে থাকে  এবং তাদের সকলকে বাধ্যতামূলক সাঁতার শিখতে হয়।

7. ডেনমার্ক একমাত্র দেশ যেখানে সর্বপ্রথম সমকামীদের বিবাহ আইন বৈধতা দেওয়া হয়।

8. সর্বপ্রথম 1970 সালের ডেনমার্কে অশ্লীল সিনেমা দেখানো লিগাল করে দেওয়া হয়।

10. ডেনমার্কের ডিভোর্স এর মাত্রা সবথেকে বেশি।

11 .ডেনমার্কে কোন শিশুর পিতা মাতার সেই শিশুর নাম রাখার অধিকার  থাকেনা সরকার দ্বারা নির্ধারিত নাম তাদের রাখতে হয়। যদি কেউ নিজেদের ইচ্ছামত নাম রাখতে চায় তাহলে তাদের আগে থেকেই চার্চে এক প্রকার  দরখাস্ত পাঠাতে হয়।

12. এখানে গাড়ি কেনার জন্য সরকারকে এক মোটা অংকের টাকা দিতে হয় যা গাড়ির দামের থেকেও বেশি। এছাড়াও লাইসেন্স বানানোর জন্য তাদের বহু টাকা খরচ হয়ে থাকে । সরকার মূলত গাড়ির ব্যক্তিগত মালিকানা কমানোর উদ্দেশ্যে এই নিয়ম চালু করেছে।

13. ডেনমার্ক বাসীদের গাড়ি থেকে সাইকেল চালানোর প্রতি আগ্রহ ও ভালোবাসা দুই বেশি। তাদের প্রত্যেকের কাছে নিজস্ব নিজস্ব সাইকেল থাকে এবং তারা বেশিরভাগ সময় সাইকেলে করেই যাতায়াত করেন। এখানে মানুষের থেকে সাইকেলের সংখ্যা বেশি।

14. ডেনমার্কে প্রায় 80 হাজারেরও বেশি ক্লাব আছে এবং এখানকার নাগরিক কোন না কোন ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত থাকে।

15. ডেনমার্কে সর্বপ্রথম 1219 খ্রিস্টাব্দে পতাকা তৈরি হয়। ডেনমার্কের জাতীয় পতাকা বিশ্বের সবথেকে পুরনো পতাকা।

16.  চৌদ্দশ বছর আগে থেকে ডেনমার্কে মানুষ বসবাস ছিল বলে  মনে করা হয়.

17. আমাদের সকলের পরিচিত একটি মোবাইল ডিভাইস হলো ব্লুটুথ এবং এর নামকরণ হয়েছিল ডেনমার্কের রাজা হেন ব্লুটুথ এর নাম অনুসারে।।

16. ডেনমার্কের জাতীয় খেলা ফুটবল প্রায় 1600 টি ক্লাব ডেনমার্কে রয়েছে। এছাড়াও ডেনমার্ক বাসীরা হকি, বাস্কেটবল ও সাইকেলিং খেলতে খুব পছন্দ করেন।

17. এছাড়াও পরিবেশ দূষণ সম্পর্কে ডেনমার্ক বাসীরা খুবই সতর্ক। ডেনমার্ক এমন একটি সবুজ ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরা দেশ যেখানে পরিবেশ দূষণ নেই বললেই চলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.