দিনে কত ঘন্টা ঘুমোচ্ছেন? বিপদ ডেকে আনছেন না তো!

নিউজ ডেস্কঃ ঘুম এমন একটি জিনিস যা আমাদের শরীরের উপর প্রত্যক্ষভাবে প্রভাব ফেলে থাকে।কারন সঠিক পরিমানে ঘুম না হলে শরীরে নানা সমস্যা দেখা দেয়।তাই সঠিক পরিমানে ঘুম হওয়া অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।কিন্তু বর্তমান দিনে নানা কারনের যেমন কাজে চাপে বেশি রাতে ঘুমানো, বেশি রাত ধরে মোবাইল ব্যবহার করা ইত্যাদি কারনের জন্য ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে।তাই ঘুমের প্রতি সচেতন  হন তা না হলে নানাধরনের শারীরিক সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন।তাই আমাদের শরীরের জন্য যতটুকু ঘুমের প্রয়োজন ততটুকু ঘুমান তা না হলে কি কি সমস্যা দেখা দিতে পারে জেনে নিন। 

১. শারীরিক সমস্যা: ঘুমের ব্যাঘাত মানেই শরীরে নানারকম সমস্যা দেখা দেয়।যেমন- ঘুম ঘুম বোধ করা,  অবসাদে ভোগা অতিরিক্ত খিদে বোধ করার কারণে শরীরে মেদ জমতে পারে, চট করে ঠান্ডা লাগার সমস্যা ইত্যাদি দেখা দিতে পারে।এছাড়াও  চামড়া শিথিল হয়ে আসে দ্রুত।তাই সারাদিনে অন্তত ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমান।

২. দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব:যদি কারোর দীর্ঘদিন ধরে ঘুম কম হয় তাহলে তাদের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের রোগে যেমন- ডায়বেটিস, স্থূলতা, হার্টের রোগ ইত্যাদি দেখা দিতে পারে।এবং এই ঘুম কমের ফলে ক্যানসারের মতো মারন রোগের ঝুকিও বৃদ্ধি পায়।এছাড়াও এরফলে নিউমোনিয়া বা ফুসফুসের রোগের হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়।৩. মানসিক সমস্যা: ঘুম কম হওয়ার ফলে মানসিক অবসাদ ও উদ্বেগের সমস্যা দেখা দেয়। যার ফলে মেজাজ হারানো,  সারাক্ষণ মন খারাপের অনুভূতিও  ইত্যাদি দেখা যায় ।এছাড়াও আইসোম্যানিয়ায় ভোগেন তাদের এই বিশয়ে সতর্ক হওয়া খুবই জরুরি।এর জন্য প্রয়োজন হলে ডাক্তারের সাহায্য নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *