ভাইরাস বা সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়তে শেষ ভরসা। ভিটামিন বি৬ এর অসাধারন কিছু উপকারিতা

নিউজ ডেস্কঃ যেকোনো খাওয়ার আমাদের শরীরের উপকার করে একথা ঠিক, তবে কিছু সময় মাথায় রাখা উচিৎ যে তার খাদ্য গুনাগুন, কারন শরীরে প্রচুর প্রোটিন, ভিটামিনের প্রয়োজন হয়ে থাকে। যার অভাবে একাধিক রোগ দেখা দিতে পারে।

ভিটামিন বি৬ আমাদের শরীরকে সুস্থ ও স্বাস্থ্যকর রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

১)ভিটামিন বি৬ আমাদের শরীরে খাবার বিপাক হতে সহায়তা করে।

২) ভিটামিন বি৬ আমাদের শরীরে হিমোগ্লোবিন তৈরি করতে সাহায্য করে।যেই হিমোগ্লোবিন  লোহিত রক্ত ​​কণিকায়  থাকে।

৩) এই আমাদের শরীরে রক্তশর্করার মাত্রা ঠিক রাখে।

৪)এছাড়াও এই ভিটামিন আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, যকৃৎকে পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে যার ফলে যকৃৎ সুস্থ থাকে ইত্যাদি কাজ করে।

ভিটামিন বি৬ এর অভাবে যেসব রোগ হয়

ভিটামিন বি৬ আমাদের শরীরকে সুস্থ ও স্বাস্থ্যকর রাখতে সাহায্য করে।তাই এই ভিটামিন বি৬ এর অভাবে আমাদের শরীরে নানা সমস্যা সৃষ্টি হয়।

ভিটামিন বি৬ এর অভাবে শরীরে রোগ প্রতিরোধ করে যাওয়া ফলে কোনও সংক্রমণ দেখা দিলে তা থেকে প্রায়ই অসুস্থ হয়ে পরে।

এই ভিটামিন আমাদের শরীরকে সুস্থ রাখতে খুবই কার্যকর ভূমিকা পালন করে। তাই এই ভিটামিনে অভাবে মুখের কোণের, ত্বকে ফাটল ধরার মতো সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

এই ভিটামিনের অভাবে জিহ্বা ফুলে যাওয়া । এমনকি জিহ্বায় ঘা হয়।

এই ভিটামিনের অভাবে মানুষ অবসাদে ভোগা।যার ফলে কাজ-কর্মে হতাশা দেখা দেয়া, সাধারণ ঝামেলায় অনেক টেনশন বোধ করা এবং অল্পতেই বিরক্ত হয়ে যাওয়া।

ভিটামিন বি৬ এর অভাবে ত্বকের সমস্যায় ভোগে। যেমন- ত্বক তৈলাক্ত হয়ে যাওয়া, কখনো কখনো লালচে বর্ণ ধারণ করা শরীরের বিভিন্ন স্থানে, বিশেষ করে মুখে ফুসকুড়ি হওয়া।

এছাড়াও ভিটামিন বি৬ এর অভাবে পেরেথেসয়াস আক্রান্ত হওয়া যাতে হাত ও পায়ে এক ধরণের অসাড়তা দেখা দেয়।

তবে ভিটামিন কে অভাব পূরন করতে হলে বেশি করে ভিটামিন কে যুক্ত খাদ্য খান। যেমন- সবুজ শাক সবজি, ভুট্টা, গম, চালের ছাট, ডিম, মাংস ইত্যাদি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *