গালিগালাজ কখনো কখনো স্বাস্থ্যের জন্য ভালো জানেন?

নিজস্ব সংবাদদাতা:     মাথা গরম হয়ে গেলে অনেকেই আমরা রাগের বশে গালাগালি বা কটূ শব্দ প্রয়োগ করে ফেলি স্কুল-কলেজ,বাড়ি এমনকি অফিসেই কেউ অতি মানসিক চাপে গালি দিয়ে ফেলেন, যার ফলে ঘটে যায় মস্ত বড় কেলেঙ্কারি। তবে গবেষণা কিন্তু বলছে ভিন্ন কথা। গবেষকদের দাবি, গালিগালাজই কমাতে পারে মানসিক চাপ, যা স্বাস্থ্যের পক্ষে লাভজনক।

একাধিক মার্কিন গবেষণার রিপোর্ট বলছে, মানসিক চাপ, অবসাদ, মাত্রাতিরিক্ত উত্তেজনা কমানোর ক্ষেত্রে গালিগালাজ খুবই কার্যকরী ভূমিকা পালন করে এবং এই ধারণার সঙ্গে একমত ব্রিটিশ গবেষক এবং মনোবিজ্ঞানীরাও।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের তাত্ত্বিক ও ফলিত ভাষাতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. কিরিকুস অ্যান্টনিও জানান, গালিগালাজ করা আসলে মন থেকে রাগ, ক্ষোভ বের করে মানসিক চাপ কাটানোর এক সহজ উপায়।

অ্যান্টনিওর মতে, যেসব মানুষ উত্তেজিত হলেও গালিগালাজ দিতে পারেন না বা দেন না, তাদের মধ্যে মানসিক অবসাদ, উচ্চরক্তচাপ, নানা স্নায়বিক সমস্যা বেশি। শুধু তাই নয়,তার মতে, কখনো কখনো এসব ব্যক্তিদের মধ্যে দ্বৈত ব্যক্তিত্বের (split personality) মতো গুরুতর সমস্যাও দেখা যায়।বরং যারা সহজে গালাগাল দিয়ে চাপমুক্ত হন তারা অনেক বেশি সুস্থ থাকেন।

তাই মার্কিন গবেষক এবং মনোবিজ্ঞানীদের মতে, মাত্রাতিরিক্ত মানসিক চাপ, অবসাদ, ক্ষোভ কাটাতে প্রয়োজনে একান্তে গালিগালাজ করা ও। তবে স্থান-কাল-পাত্র সম্পর্কে অবশ্যই খেয়াল রেখে গালাগাল করা  উচিত,সেটা ভুলে গেলে চলবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *