রক্তপড়া, রক্ত আমাশা, অশ্ব রোগ সারাতে এই বিশেষ প্রক্রিয়ায় ডুমুর খান

রিয়া আচার্যঃ বসন্ত কাল শেষের পথে গরম কালের শুরু। ফলেই বেশ নতুন সবজি আবারও আমদানি শুরু হবে সব্জির বাজারে। ফলেই মাছে ভাতে বাঙালি আবারও নতুন রকমের রান্না শুরু করে দেবে এই গরমেই। একটু হাল্কা পাতলা খাওয়ার পাশাপাশি স্বাস্থের উন্নতির জন্য অনেক রকমের আইটেম রান্না করতে দেখতে পাওয়া যায় আপামর বাঙালির হেঁসেলে। ঠিক সেরকমই এক জিভে জল আনা আইটেম হল ডুমুর। এই ডুমুরে স্বাদের পাশাপাশি এর গুনাগুন কিন্তু কালজয়ী। যা কিন্তু অনেকেরই অজানা।

ডুমুর পিত্ত ও আমাশার অসুখ সারিয়ে দেয়।

ডুমুরে যথেষ্ট লোহা থাকায় রক্তপিত্ত ( স্কার্ভি ),রক্তপ্রদর, রক্তপড়া অশ্ব, রক্তস্রাব ও রক্তহীনতা (অ্যানিমিয়া ) রোগে উপকারী।

কচি ডুমুরের রসে মিছরি মিশিয়ে দিনে দুবার ( ১ চা চামচ ডুমুরের রস + অর্ধ চা চামচ মিছরি গুঁড়ো ) খেলে মুখ থেকে রক্ত ওঠা বন্ধ হয়। তিন দিন এইভাবে ডুমুরের রস খেতে হবে।

আমাশা রোগে ডুমুর পাতার একটি কুঁড়ি আতপ চালের সঙ্গে চিবিয়ে খেলে অনেক রোগের উপশম হয়। এইভাবে তিনদিন খেলে বিশেষ উপকার পাওয়া যায়।

ডুমুর গাছের ছাল থেঁতো করে মিছরির পানার মিশিয়ে ভালো করে চটকে ছেঁকে খেতে হবে। প্রতিদিন ২ বেলা ২ চা চামচ করে একটু চিনি মিশিয়ে খেলে সাদা আমাশা ও রক্ত আমাশা সারবে।

যদি মাথা ঘোরে তাহলে ভাতের পাতে প্রথমে এক চা চামচ দূর্বা ঘাস ভাজা খেয়ে তার পরে বীজ বাদ দিয়ে ডুমুর ভাজা খেলে উপকার হয়।

যজ্ঞ ডুমুরের রস মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খেলে মেয়েদের প্রদর রোগ সারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *