হ্যাকিং সবন্ধে আপনি কি অবগত? উত্তর পেতে চোখ রাখুন ১ মার্চ “দ্য হ্যাকার” ছবিতে

সুমিত, কলকাতাঃ হ্যাক। শব্দটার সাথে পরিচিত নয় এমন টিন এজ ছেলেমেয়ে খুঁজে পাওয়া একটু মুশকিল। কারন ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম এবং হোয়াটস অ্যাপ এর যুগে এই হ্যাকিং সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়েছে প্রচুর মানুষকে। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ার বাড় বাড়ন্তের পর এই সমস্যাটা লাফিয়ে বাড়ছে। বিশেষ করে ফেসবুকে প্রোফাইল হ্যাক করা। আর যদি সোশ্যাল মিডিয়াও ছেড়ে দেওয়া হয় তো ওয়েব সাইট হ্যাকিং এর মতো সমস্যায় অনেক মানুষকে পড়তে হয়েছে। তো এখানে অনেকে হ্যাকিং ব্যাপারটার সাথে পরিচিত থাকলেও অনেকের মনে একটা খুব কমন প্রশ্ন, যে এই হ্যাক জিনিস করে লাভটা হয় কি? মানে কেনই বা হ্যাক করা হয়?বা হ্যাক শব্দের অর্থই বা কি?

হ্যাক কথাটির অর্থ হল চুরি। বিশেষ করে তথ্য লোপাট করা। আর তথ্য লোপাট করে লাভটা কি? এখানে বিভিন্ন্য ধরনের লাভ হতে পারে। ধরুন ফেসবুক হ্যাক হলে তেমন একটা অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়না। তা উদ্ধার করা সম্ভব। কিন্তু ধরুন যদি কোনও ওয়েব সাইট হ্যাক হয়। বিশেষ করে ই-কমার্স সাইট গুলি। তাহলে এখানে বিরাট অর্থের ক্ষতি বা চুরি হওয়ার সম্ভবনা থেকে যায়। মানে ধরুন আপনি অনলাইনে আম্যাজান বা ফ্লিপ কার্টের মতো সাইট থেকে আপনার ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড দিয়ে কিছু কিনছেন, এবং তাঁর কিছুদিন পর দেখলেন যে এরকম কোনও ই-কমার্স সাইট হ্যাক হয়ে গেছে। তখন সেখান থেকে আপনার কার্ডের তথ্য চুরি হয়ে যায়। এবং হ্যাকাররা আপনার মোবাইল এবং ইমেলের ব্যবহার করে আপনার টাকা চুরি করতে সক্ষম। এবং এই হ্যাকিং ঠেকাতে বিভিন্ন্য সাইট গুলি প্রচুর দাম দিয়ে ssl(সিকুইরিটি শক্যেট লেয়ার) লাগাচ্ছে অর্থাৎ তালা ব্যবহার করছে। এবং তখন হ্যাকারদের বেশ সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় সেই সাইট গুলি হ্যাক করতে। এককথায় তখন প্রায় অসম্ভব হয়ে পরে। এবং হ্যাকারদের মধ্যেও আবার শ্রেনি বিভাগ আছে। এক হল এথিক্যাল হ্যাকার এবং দুই আন এথিক্যাল হ্যাকার।

শুধুই যে ওয়েব সাইট হ্যাক করে টাকা চুরি করবে বা ধরুন বাজে কাজে ব্যবহার করবে হ্যাকাররা সবসময় সেরকম না ও হতে পারে। কিছু ক্ষেত্রে জাতীয় উদ্দেশ্যেও হ্যাকারদের ব্যবহার করা হয়ে থাকে। কিছুদিন আগে যেমন ভারতের স্করপিয়ান সাবমেরিনের তথ্য চুরি হয়েগেছিল। সেক্ষেত্রে ভারতবর্ষের ডিফেন্স সংক্রান্ত তথ্য চুরি হয়ে যাওয়ায় শত্রুদেশ ভারতের পাওয়ার সম্বন্ধে অবগত হয়ে যায়। ঠিক এই রকমই হ্যাকার দের খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে আগামি ১ মার্চ রিলিজ হতে চলেছে “দ্য হ্যাকার” বাংলা ছবি। যার মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন আরিয়ান এবং এনা সাহা। “এধরনের বাংলা ছবি আগে বাংলার মানুষ দেখেনি” বলে জানান ছবির পরিচালক  সিদ্ধার্থ সেন। ছবিতে কাবির আলি এক আন্ডার কভার এজেন্ট, এই চরিত্রে অভিনয় করছেন আরিয়ান (দুই জনের নামই এক)। লেস স্টাইলস প্রোডাকশনের ব্যনারে তৈরি ছবিটির মিউসিক দিয়েছেন লয়, দ্বীপ এবং রাঙ্গুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *