বার্সার কপাল ভালো! নাকি সুয়ারেজের এক্স ফ্যাক্টর! কি কি উঠে এল ক্লাসিকোতে?

স্পোর্টস ডেস্কঃ বার্সেলোনা ৩-০ গোলে জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদের বিরুদ্ধে। কোপা দেল রে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে জয় পেয়ে ফাইনালে পৌছে গেছে বার্সেলোনা। কিন্তু ৩-০ গোলে জয় পেলেও স্বস্তি নেই বার্সা শিবিরে। কারন এদিনের ম্যাচে সুয়ারেজ, মেসিরা জয় পেলেও তা কিছুটা ভাগ্যের জোরে তা হয়ত সামান্য ফুটবল ক্ষুদেও বোঝে। কারন রিয়ালের প্লেয়াররা প্রথমার্ধেই একাধিক সুযোগ পেলেও তা কাজে লাগাতে সক্ষম হয়নি। যদি প্রথমার্ধে কিছুটা এগিয়ে থাকত তাহলে হয়ত স্বাভাবিক কারনেই দ্বিতীয়ার্ধে প্রথম থেকেই চাপে থাকত বার্সা।

দ্বিতীয়ার্ধে সুযোগ কাজে লাগিয়ে গোল করতে সক্ষম হয়েছে বার্সেলোনা। এবং দ্বিতীয়ার্ধে গোলের পেছনে দুই বার্সা প্লেয়ারের এক্স ফ্যাক্টর কাজে লেগেছে বলে মত ফুটবল মহলের। প্রথমত ফরাসি তারকা দেম্বলেকে ১০০ মিলিয়ন পাউন্ড খরচ করে কেন দলে নেওয়া হয়েছে তা প্রমান করেছেন তিনি এদিন। আর দ্বিতীয়ত লুইস সুয়ারেজ। তিনি একটা জিনিস খুব স্পষ্ট ভাবে প্রমান করেছেন যে এল ক্লাসিক বা ডার্বির মতো জায়গায় অভিজ্ঞতা এবং এক্স ফ্যাক্টর কিভাবে কাজে লাগাতে হয়। ফলে তাঁর ট্র্যান্সফারের প্রসঙ্গ আপাতত কিছুদিন আর উঠবেনা বার্সা শিবিরে।

অর্থাৎ রিয়াল মাদ্রিদের বিরুদ্ধে খেলার পর কিছু নতুন স্ট্যাটিস্টিক উঠে এসেছে বার্সা শিবিরে। প্রথমত বার্সার ডিফেন্স লাইন কিছুটা হলেও নড়বরে এবং দ্বিতীয়ত ফরওয়ার্ড লাইন বেশ ফর্মে রয়েছে।

দুদিন পরেই লা লিগাতে আবার মুখোমুখি বার্সা-রিয়াল। এই নিয়ে চলতি মরশুমে চতুর্থবার রিয়ালের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। এই মরশুমে মোট তিনবার এখনও পর্যন্ত মুখোমুখি হয়েছে বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদ। তার মধ্যে দুইবার জয় এবং একবার ড্র করেছে ভাল্ভারদের ছেলেরা। ফলে চতুর্থবার বেশ চাপেই থাকবে রিয়াল। কারন একদিকে ম্যাচ জেতার পাশাপাশি অন্যদিকে বার্সার ফরওয়ার্ড লাইন চাঙ্গা থাকার কারনে তাদের ডিফেন্সকে আগে থেকেই শক্তপোক্ত ভাবে সাজাতে হবে। এখন দেখার এই তিন ম্যাচ থেকে শিক্ষা নিয়ে নিজেদের কতটা তৈরি করে মাঠে নামতে পারে স্যান্টিয়াগো বার্নেবাউতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *